Home / International / ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকে ভাই-বোনের মাসিক আয় ৩০ লাখ টাকা

ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকে ভাই-বোনের মাসিক আয় ৩০ লাখ টাকা

ক্রিপ্টোকারেন্সি, এই বিষয়টি অনেকের কাছেই একটি গোলকধাঁধার মতো। তবে বছর ১৪ বছর বয়সী ঈশান এবং ৯ বছর বয়সী নয়েকের অনন্যার কাছে তা যেন অতি সামান্য পরিমাণ জিনিস! ভারতীয় বংশোদ্ভূত দুই ভাই-বোন বর্তমানে এই ক্রিপ্টোকারেন্সি থেকেই মাসে আয় করছে ৩৫ হাজার ডলার। বাংলাদেশি টাকার প্রায় ৩০ লাখ।

১৪ বছর বয়সী ঈশান এবং ৯ বছর বয়সী নয়েকের অনন্যা

যেখানে অনেকেই ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ে হিমশিম খান, এই বয়সে দু’জনে তা আয়ত্ত করল কীভাবে? তাও আবার পাকা পেশাদারদের মতো। কোথা থেকেই বা এই ক্ষেত্রে বিনিয়োগের পরিকল্পনা তাদের মাথায় এল? এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে এ প্রসঙ্গে ঈশান জানিয়েছে, সাত মাস আগে ক্রিপ্টোকারেন্সি, বিটকয়েন এই শব্দগুলো সম্পর্কে শুনেছিল সে।

বিষয়টি নিয়ে প্রবল আগ্রহ তৈরি হয়। এরপরই বিষয়টি নিয়ে ইউটিউব এবং বিভিন্ন পত্রিকা ঘাঁটাঘাটি শুরু করে সে। তার কথায়, ‘তখনই ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগের পরিকল্পনা মাথায় আসে। তবে বিনিয়োগ করার মতো অত টাকা ছিল না আমাদের কাছে। তাই ঠিক করেছিলাম বিনিয়োগ করার আগে ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগের জন্য সঠিক সামগ্রী কিনবো।’

ক্রিপ্টোকারেন্সি

অন্য দিকে অনন্যা বলে, ‘দাদা আর আমি দু’জনে মিলে এই বিনিয়োগের পরিকল্পনা করি। বিষয়টি ভালো লাগার পর দাদাকে এ বিষয়ে উৎসাহও দিয়েছি।’

তবে কয়েক দিনের মধ্যেই বিষয়টি আয়ত্ত করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে দু’জনে। সাত মাস ধরে ইউটিউব ঘেঁটে, বিটকয়েন এবং ক্রিপ্টো সংক্রান্ত নানা পত্রিকা পড়ে বিনিয়োগ সম্পর্কে ভালোভাবে জানার চেষ্টা করেছে তারা। তারপরই গেম খেলার জন্য কেনা নিজের কম্পিউটারকে ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগের উপযোগী করে তোলে।

তারপরই গেম খেলার জন্য কেনা নিজের কম্পিউটারকে ক্রিপ্টোকারেন্সিতে বিনিয়োগের উপযোগী করে তোলে

ঈশানের কথায়, ‘শুরুতে দিনে তিন ডলার আয় করছিলাম। এখন সেখানে মাসে ৩৫ হাজার ডলার আয় করছি। আমরা খুব খুশি।’ এটাকেই কি ভবিষ্যতের পেশা হিসেবে বেছে নিতে চাইছে ঈশান। অনন্যা এখনও সে বিষয়ে নির্দিষ্ট কিছু স্থির না করলেও তবে এই টাকা নিজেদের উচ্চশিক্ষার কাজেই খরচ করতে চান ঈশান।

About admin

Check Also

স্ত্রীর ভয়ে জেলে যাওয়ার আবেদন স্বামীর

নিজে ইচ্ছায় কেউ কি জেলে যেতে চায়? এর প্রশ্নের উত্তর এতদিন সরাসরি ‘না’ বললেও এখন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *